বেসিক পর্ব ০৭ – সিজিপিএ (ভাগ্য)

catsবিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সিজিপিএ জানতে চাওয়া অভদ্রতা এরকম এক ধরনের মতবাদ আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে চালু আছে । আমরা পরীক্ষা দেই, কেউ কেউ যা আশা করি সে অনুযায়ী রেজাল্ট করি । কেউ ভালো করি, কেউ খারাপ করি । এখানে তিনটি বিষয় , যা আশা করি সে অনুযায়ী রেজাল্ট হলে সাফল্য , তার থেকে ভালো করলে সৌভাগ্য , আর খারাপ করলে দুর্ভাগ্য ।

প্রতি বিষয়ে প্রাপ্ত পয়েন্ট যোগ করে যোগফলকে মোট বিষয় দ্বারা ভাগ করলে যে পয়েন্ট আসবে তাই তার সিজিপিএ । এখানে বিষয় সংখ্যা, প্রতি বিষয়ে প্রাপ্ত নম্বর ও প্রত্যাশিত গ্রেড দেওয়া থাকবে । আপনাকে বের করতে হবে সাফল্য, সৌভাগ্য না দুর্ভাগ্য ।

 

আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ খুবই আন্তরিক । এক নম্বরের জন্য কোন বিষয়ের গ্রেড যদি কমে যায় তবে উনারা সেই নম্বরটুকু আমাদের দিয়ে দেন । কিন্তু সর্বচ্চ তিন বিষয়ে । আর সর্বোচ্চ তিন বিষয়ে এ সুবিধা দেওয়া হয় । (বিষয়টি কাল্পনিক)

তিন বিষয়ে অকৃতকার্য হলে সিজিপিএ আসবে 0.00 । এক ও দুই বিষয়ে অকৃতকার্যের ক্ষেত্রে সিজিপিএ হিসাবে উক্ত বিষয় দুইটিতে পয়েন্ট 2.00 হিসাব করতে হবে ।

যেমন ছয় বিষয়ে প্রাপ্ত নম্বর যদি ৭০ ৭০ ৭০ ৬৯ ৭০ ৭০ হয় তবে ৬৯ এর সাথে ১ যোগ করে ৭০ করা হবে কারন এতে গ্রেড A- হবে । তাহলে মোট পয়েন্ট হবে (3.50+3.50+3.50+3.50+3.50+3.50)= 21 । সুতরাং সিজিপিএ 21/6 = 3.50 । এখন প্রত্যাশিত সিজিপিএ যদি A- হয় তবে সাফল্য, B+ হলে সৌভাগ্য, আর A+ হলে দুর্ভাগ্য ।

ইনপুটঃ

প্রথম লাইনে প্রথমে বিষয় সংখ্যা (n) পরে প্রত্যাশিত গ্রেড দেওয়া থাকবে । দ্বিতীয় লাইনে n সংখ্যক পূর্ণসংখ্যা থাকবে যেগুলো প্রতি বিষয়ে প্রাপ্ত নম্বর । n এর মান শূন্য হলে প্রোগ্রাম শেষ হবে । প্রতিটি পরীক্ষার পূর্ণমান ১০০ ।

 

আউটপুটঃ

ইনপুটের উপর ভিত্তি করে প্রতি লাইনে সাফল্য (safollo), সৌভাগ্য (souvaggo) না দুর্ভাগ্য (durvaggo) প্রিন্ট করতে হবে তবে তার আগে প্রথমে কেস নং প্রিন্ট করতে হবে ।

 

 

3 comments

  1. MATi says:

    vai koto point e A-, B+, A+ hobe seta bujhte parcina

  2. ariyan tanvir says:

    thnx a lot..for your help

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *