Archive for শরীফ চৌধুরী

compiler_interpreter

কম্পাইলার, ইন্টারপ্রেটর, আই ডি ই (Compiler, Interpreter, IDE )

মাতৃভাষার জন্য শহীদদের অবদান অনেকেই ভুলে গেছে যার জন্য দেশিও সংস্কৃতি আজ ধ্বংসের পথে। কিন্তু গনক সাহেব এই তথাকথিত অনেকের মধ্যে পড়েন না। তিনি বাংলা ছাড়া অন্য কোন ভাষায় কথা বলেন না। কিন্তু ব্যবসার প্রয়োজনে তাকে এক চীনা ক্লায়েন্টের সাথে যোগাযোগ রাখতে হয় হারহামেসাই। তিনি অবশ্য এটা নিয়ে চিন্তিত নন। তিনি পলা ও পিটু নামের দুইজনকে নিজের কাজের জন্য তৈরী করে নিয়েছেন। এরা বাংলা,চাইনিস দুইটাই জানে । এদের কাজ হলো গনক সাহেবকে সাহায্য করা। এরা গনক সাহেবের কাছে বাংলা শুনে ক্লায়েন্টের কাছে চাইনিস ভাষায় উপস্থাপন করে এবং ক্লায়েন্টের কাছে কথা শুনে তা গনক সাহেবকে বলে।

Continue reading “কম্পাইলার, ইন্টারপ্রেটর, আই ডি ই (Compiler, Interpreter, IDE )” »

ক্যারেক্টার এর ক্যারেক্টারিস্টিক

সাধারন কিছু কথাঃ

ক্যারেক্টার হচ্ছে ১ বাইট । ১ বাইট = ৮ বিট । যেহেতু কম্পিউটার ০ ও ১ ছাড়া কিছু বুঝে না । অর্থাৎ ১ বিট এ সর্বচ্চ ২ টা সংখ্যা(০,১) হইতে পারে । ২ বিট এ হইতে পারে ৪ টি (০০,০১,১০,১১)। এভাবে ৮ বিট এ সর্বচ্চ ২৫৬ টি সংখ্যা থাকতে পারে । এর অর্থ হল ১ বাইট এ থাকে মোট ২৫৬ টি সংখ্যা । কম্পিউটার এ মোট ২৫৬ টি ক্যারেক্টার । ০ থেকে ২৫৫ পর্যন্ত মোট ২৫৬ টি সংখ্যা দ্বারা ২৫৬ টি ক্যারেক্টার প্রকাশ পায় । এদেরকে ASCII মান বলে । প্রতিটি ক্যারেক্টার এর নির্দিষ্ট মান আছে যা দ্বারা ওই ক্যারেক্টারকে নির্দেশ করা হয় ।

যখন কী বোর্ড এ কোন কী চাপা হয় তখন কম্পিউটার আসলে সেই অক্ষরটির ASCII মান পায় এবং মানটাকে প্রসেস করে Video Adapter এর মাধ্যমে অক্ষরটির গঠন মনিটর এ দেখায় ।

Continue reading “ক্যারেক্টার এর ক্যারেক্টারিস্টিক” »

রিকার্সন শেষ পর্ব

http://www.techsharif.com/category/%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%B8%E0%A6%A8/

গত দুই পর্বে আমি রিকার্সন এর সাহায্যে একটি প্রবলেম সল্ভ করেছি । আজকের পর্বে আমি রিকার্সন এর বেসিক কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করব ।

যদি একটি ফাংশন f() যা নিজেই নিজের একটি কল স্টেটমেন্ট অথবা দ্বিতীয় কোন ফাংশনের একটি কল স্টেটমেন্ট দ্বারা f() এ ফিরে আসে তখন f() কে রিকার্সিভ ফাংশন বলে । ফাংশনটি যাতে অনির্দিষ্ট সময় ধরে না চলে তার জন্য কিছু বিষয় মেনে চলা হয় ।

  • এমন কিছু বৈশিষ্ট্য যার জন্য ফাংশনটি আর নিজেকে কল করে না । অর্থাৎ ফাংশনের কিছু আর্গুমেন্ট থাকবে যার জন্য ফাংশনটি আর নিজেকে কল করবে না । একে বেস ভ্যালু বলে ।
  • প্রত্যেক সময়ে যখন ফাংশনটি নিজেকে কল করে তখন ফাংশনের আর্গুমেন্ট বেস ভ্যেলুর নিকটবর্তী হতে থাকবে ।

Continue reading “রিকার্সন শেষ পর্ব” »

রিকার্সন ২য় পর্ব

http://www.techsharif.com/category/%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%B8%E0%A6%A8/

[প্রথমে একটি বিষয় পরিষ্কার করে ফেলি , ১২৩ একটি সংখ্যা হলে এর ১ম অঙ্ক হলো ১ আর একক স্থানীয় অঙ্ক হলো ৩ ।]

গতপর্বে আমি আপনাদেরকে দুটো কাজ করতে বলেছিলাম প্রথমটি হলো (৫৫৫+৫৫৫) এর জন্য আউটপুট ০১১ আসছিলো, আসলে আসার কথা ০১১১ । এটা ঠিক করার কথা বলা হয়েছিলো । আর ২য় কাজটি হলো লুপ দিয়ে আউটপুট সঠিক নিয়ে আসা । সেক্ষেত্রে (৫৫৫+৫৫৫) এর আউটপুট আসবে ১১১০ । আসাকরি কাজদুটো করে এই পর্ব পরা শুরু করেছেন ।

Continue reading “রিকার্সন ২য় পর্ব” »

রিকার্সন ১ম পর্ব

http://www.techsharif.com/category/%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%B8%E0%A6%A8/আমার প্রথম স্কুলে ভর্তি পরীক্ষা , ১৯৯৬ সালের ডিসেম্বর মাস । বেবী ক্লাস এ ভর্তির মৌখিক পরীক্ষা । স্পষ্ট মনে আছে আমাকে একটি যোগ করতে দেওয়া হয়েছিলো, যার দুটি সংখ্যাই ছিলো তিন অঙ্কবিশিষ্ট । অবশ্য সংখ্যা দুইটি আমি মনে রাখতে পারি নি ।

যোগ দিয়ে আমি আজকে একটা বড় বিষয় বুঝানোর চেষ্টা করব।

 image001 Continue reading “রিকার্সন ১ম পর্ব” »